কেন্দ্র সরকারের প্রকল্প

আবেদন করুন কিষাণ মানধন যোজনায় এবং প্রতি মাসে পান ৩ হাজার টাকা।

কৃষকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে তাদের ভবিষ্যত সুরক্ষিত করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ মানধন যোজনা কার্যকরী করা হয়েছে। যেসকল কৃষকরা কৃষিকাজ ছাড়া অন্যকোনো কাজ পারেন না অথবা বৃদ্ধ বয়সে কৃষিকাজ করতে পারেন না তাদের সামাজিক সুরক্ষা প্রদানের জন্য বৃদ্ধ বয়সের পেনশন হিসেবে এই যোজনার অধীনে প্রতি মাসে ৩,০০০ টাকা অনুদান দেওয়া হয়ে থাকে।

মূলত ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের কথা মাথায় রেখেই কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে এই প্রকল্পটি কার্যকরী করা হয়েছে। যদিও অধিকাংশ কৃষকই এখনও পর্যন্ত এই প্রকল্পটি সম্পর্কে জানেন না, যার কারণে এই প্রকল্পের অধীনে নিজের নাম নথিভুক্ত করতে পারেন না। আর তাই আজ আমরা আপনাদের সুবিধার্থে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ মানধন যোজনার অধীনে আবেদনের প্রক্রিয়া, আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি, আবশ্যিক যোগ্যতা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নিয়ে হাজির হয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী কিষাণ মানধন যোজনার অধীনে আবেদনের ক্ষেত্রে আবশ্যিক যোগ্যতা কি কি:-
১. ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকরাই কেবলমাত্র এই প্রকল্পের অধীনে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন।

২. ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সী কৃষকরাই কেবলমাত্র এই যোজনার অধীনে আবেদন জানাতে পারবেন।

৩. রাজ্য বা কেন্দ্রীয় সরকারের রেকর্ড অনুসারে ২ হেক্টর পর্যন্ত চাষযোগ্য জমি রয়েছে এরূপ কৃষকরাই কেবলমাত্র এই যোজনার অধীনে আবেদন জানাতে পারবেন।

প্রকাশিত হলো উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার রুটিন ২০২৩, দেখে নিন এখনই।

এই যোজনার অধীনে কতো টাকা অনুদান পাওয়া যাবে?
প্রধানমন্ত্রী কিষাণ মানধন যোজনার আওতায় নাম নথিভুক্ত রয়েছে এরূপ কৃষকরা তার ৬০ বছর বয়স হলে প্রতি মাসে ৩,০০০ টাকা করে পেনশন পাবেন। কোনো কারণে ৬০ বছরের পূর্বে এই যোজনার উপভোক্তা মারা গেলে উপভোক্তার স্বামী বা স্ত্রী ৫০ শতাংশ পেনশন পাবেন। তবে এক্ষেত্রে মনে রাখা প্রয়োজন যে, এই যোজনার অধীনে পেনশনের সুবিধা পেতে গেলে যেকোনো গ্রাহককে প্রতি মাসে ৫৫ টাকা থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত জমা দিতে হবে। তবে কতো টাকা দিতে হবে তা নির্ভর করছে উক্ত ব্যক্তির বয়সের উপর।

এই যোজনার অধীনে কিভাবে নিজের নাম নথিভুক্ত করবেন?
এই যোজনার অধীনে নিজের নাম নথিভুক্ত করার ক্ষেত্রে আপনাকে প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী কিষাণ মানধন যোজনার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://maandhan.in/ -এ যেতে হবে। এরপর ডানদিকে থাকা মেনু বারে ক্লিক করে Services এর অধীনে থাকা New Enrollment অপশনে ক্লিক করতে হবে। এরপর আপনার সামনে যে নতুন পেজটি আসবে তাতে আপনি দুটি অপশন দেখতে পারবেন যার মধ্যে থেকে আপনাকে self enrollment অপশনটি বেছে নিয়ে হবে এবং নিজের ফোন নম্বর, নাম, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ডিটেইলসের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হবে। এরপর KPAN আইডি জেনারেট হবে এবং একটি ম্যান্ডেট ফর্ম দেওয়া হবে। এই ফর্মটি ডাউনলোড করে সাক্ষর করার পর পুনরায় আপলোড করতে হবে, তাহলেই আবেদনপত্রটি সাবমিট হয়ে যাবে। এই পদ্ধতিতে আবেদনপত্রটি সাবমিট করার প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করা হলেই উক্ত ব্যক্তি প্রধানমন্ত্রী মানধন যোজনা কার্ড ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি:-
১. আবেদনকারীর আধার কার্ড।
২. আবেদনকারীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সমস্ত তথ্য।

Related Articles

Back to top button